সোনারগাঁয়ে মারজিনা হত্যা মামলার দুই আসামী গ্রেফতার

973
edf

ফরিদ হোসেন-সোনারগাঁ প্রতিনিধি: সোনারগাঁ উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নে মারজিয়া নামের এক গৃহবধু হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত দুই সহোদরকে গ্র্রেফতার করেছে। গত শনিবার রাতে তাদের গাজীপুর কাপাসিয়া টঙ্গী আরিফপুর এলাকা থেকে গ্রেফতারের পর থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের ফতেপুর দড়িকান্দি গ্রামের শুক্কুর আলীর ছেলে আজিজুল হক ও জসিম উদ্দিন।

সোনারগাঁ থানার উপ-পরিদর্শক আব্দুর হক সিকদার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সনমান্দি গ্রামের গৃহবধু মারজিনা হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান আসামী আজিজুর হক ও তার ছোট ভাই জসিমউদ্দিনকে গত শনিবার রাতে গাজীপুর টঙ্গী আরিফপুর গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞেসাবাদের জন্য রোববার দুপুরে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে নারায়ণগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

জানাগেছে, উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের ফতেপুর দড়িকান্দি গ্রামের শুক্কুর আলীর ছেলে আজিজুল হকের সাথে পাশ্ববর্তী জামপুর ইউনিয়নের মুছারচর গ্রামের নুরুজ্জামানের মেয়ে মারজিয়ার সঙ্গে ১০ বছর আগে বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনের তাদের দুই মেয়ে ও এক ছেলের জন্ম হয়। বিয়ের পর থেকে আজিজুর অন্য নারীদের সাথে পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে মারজিয়া ও আজিজুল হকের সাথে প্রায়ই ঝগড়া হতো। এক পর্যায়ে মারজিয়া তার বাবার বাড়ি চলে যায়। সম্প্রতি গ্রাম্য সালিসের মাধ্যমে মারজিয়া আজিজুলের বাড়িতে পুনরায় সংসার করার জন্য যায়। এসময়ও মারজিয়াকে আজিজুল হক ও তার পরিবার বিভিন্ন সময়ে মারধর করে। পরে চলতি বছরের ২ নভেম্বর সকালে মারজিয়াকে আজিজুল ও তার পরিবারের লোকজন শ্বাসরোধে হত্যার পর বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় নিহত মারজিয়ার ভাই ফারুক হোসেন বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এর আগে আসামী আজিজুল হক আরেকটি বিবাহ করেছিলেন।

সোনারগাঁও থানার ওসি মোরশেদ আলম পিপিএম বলেন, মারজিয়া হত্যা মামলার দুই গ্রআসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের রিমান্ড চেয়ে নারায়ণগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ###