সিদ্ধিরগঞ্জে নিষিদ্ধ পলিথিন তৈরীর দুটি কারখানা সিলগালা,তিন লাখ টাকা জরিমানা

529

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: সিদ্ধিরগঞ্জে নিষিদ্ধ পলিথিন তৈরীর দুটি কারখানায় ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে দুটি প্রতিষ্ঠানকে দেড় লাখ টাকা করে তিন লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে প্রত্যেককে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট। আজ মঙ্গলবার রাত আটটায় র‌্যাব-১১ এর আদমজীনগর সিপিএসসি, কোম্পানী অধিনায়ক লেঃ কমান্ডার (ট্যাজ) মোঃ গোলজার হোসেন এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আজ দুপুর ১টায় সিদ্ধিরগঞ্জের জলকুড়ি নাইনতার পাড়া এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব মাসুম আলী বেগ এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের ইন্সপেক্টর শেখ মোজাহীদ এর নেতৃত্বে র‌্যাব-১১ অভিযান চালায়। এসময় জনৈক দেলোয়ার হোসেন বাবুল এর মালিকানাধীন ছোয়া পিপি প্যাকেজিং এবং সেন্টু মিয়ার মালিকানাধীন সেন্টু পিপি প্যাকেজিং নামের দুটি অবৈধ পলিথিন তৈরীর কারখানায় মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় পলিথিন প্রস্তুত ও বিক্রির সাথে জড়িত কারখানার মালিক দেলোয়ার হোসেন বাবুল ও সেন্টু মিয়া প্রত্যেককে দেড় লাখ টাকা করে অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। অনাদায়ে প্রত্যেককে এক বছর করে কারাদন্ড প্রদানের রায় দেয়া হয়। অভিযানে পরিবেশ দূষণকারী নিষিদ্ধ পলিথিন প্রস্তুতের সময় হাতে নাতে দুই মালিককে গ্রেফতার করা হয়। এসময় পলিথিন পলি প্রোপাইলিং(পিপি)-০৮ টন, ৬৮ বস্তা ১৭০০ কেজি, পলিথিন তৈরীর কাঁচামাল পলিথিন, রোল ২১৭৫ কেজি উদ্ধার করা হয়। পরে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব মাসুম আলী বেগ এর নির্দেশে বাংলাদেশ পরিবশে সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ (সংশোধনী ২০১০) এর ৬(ক)/(খ) ধারা অনুযায়ী অবৈধ পলিথিন উৎপাদন, বাজারজাতকরণ, বিক্রয়, মজুদ ও বিতরণ করার অপরাধে আসামী দেলোয়ার হোসেন বাবুল (৪০) ও আসামী সেন্টু মিয়া (২৭) উভয়ের প্রত্যেককে ১,৫০,০০০/- টাকা করে মোট ৩,০০,০০০/- টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে প্রত্যেককে ০১ (এক) বছরের কারাদন্ড প্রদান করেন। কারাখানা দুটি সীলগালা করা হয়েছে। এবং উদ্ধারকরা আলামত পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব মাসুম আলী বেগ এর নির্দেশে পরিবেশ অধিদপ্তর, নারায়ণগঞ্জের ইন্সপেক্টর শেখ মোজাহীদ এর নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। ###