বন্ধ কারখানা খুলে দেওয়া ও শ্রমিকদের মামলা প্রত্যাহারের দাবীর স্মারকলিপি

561

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: আদমজী ইপিজেডে বন্ধ ঘোষিত অনন্ত হুয়াসিয়াং সোয়েটার কারখানা খুলে দেওয়া শ্রমিকদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারসহ ৭ দফা দাবীর প্রেক্ষিতে আলোচনার উদ্যোগ গ্রহণ এবং সংকট সমাধানে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেছে শ্রমিকরা।
স্মারকলিপি প্রদানের পূর্বে চাষাড়া শহীদ মিনারে শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। কারখানার শ্রমিক রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দাস, গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের জেলার সভাপতি এম.এ. শাহীন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন, সহ-সাধারণ সম্পাদক দিলীপ দাস, কারখানার শ্রমিক আলম, নূরজাহান প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, অনন্ত হুয়াসিয়াং সোয়েটার কারখানার শ্রমিকরা বেঁচে থাকার প্রয়োজনে মজুরী বৃদ্ধিসহ ৭ দফা দাবীনামা কারখানা কর্তৃপক্ষের নিকট উত্থাপন করেছিলেন। কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের দাবী বিবেচনায় না নিয়ে উল্টো আন্দোলন দমন করার হীণ উদ্দেশ্যে কারখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষনা করে। আন্দোলনরত শ্রমিকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে পুলিশ দিয়ে হয়রানি করছে। ৪জন শ্রমিককে গ্রেফতার করে জেলে পাঠানো হয়। গ্রেফতারকৃত শ্রমিক নূরুল ইসলাম, রেজাউল, বাসার, সাখাওয়াত হোসেন আজ গতকাল রোববার আইনী প্রক্রিয়ায় আদালত থেকে জামিন লাভ করেন। উদ্ভুত পরিস্থিতি সমাধানের জন্য বেপজা কর্তৃপক্ষ বরাবর লিখিত আবেদন জানানোর পরও শ্রমিকরা কোন সমাধান পায়নি। গত ১৩ ফেব্রুয়ারী কারখানার শ্রমিকদের মাঝে উত্তপ্ত পরিবেশ সৃষ্ট হলে ঘটনাস্থলে শিল্প পুলিশের সুপার ও বেপজা কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত হয়ে শ্রমিকদের আশ্বস্ত করেছিলেন পরবর্তী ১৬ মার্চ আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করবেন। কিন্তু তাও করা হয়নি। শ্রমিকরা অসহায় হয়ে বাধ্য হয়ে রাজপথে আন্দোলন করছে। দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।#