৭ খুন মামলায় সকল আসামীর মৃত্যুদন্ডের আবেদন করেছে রাষ্ট্রপক্ষের

193

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নারায়ণগঞ্জে ৭ খুনের দুটি মামলায় প্রধান আসামী নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তা তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, আরিফ হোসেন ও এম এম রানাসহ ২৩ আসামীর উপস্থিতিতে দুইপক্ষের প্রথমদিনের যুক্তিতর্কের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগামীকাল দ্বিতীয় দিনের যুক্তিতর্কের শুনানী অনুষ্ঠিত হবে।
সোমবার সকাল পৌনে ১০টা থেকে জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেনের আদালতে পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন। এর আগে সকালে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে মামলার প্রধান আসামী নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তা তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, আরিফ হোসেন ও এম এম রানাসহ ২৩ আসামীকে আদালতে হাজির করা হয়।
আদালতে পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন বলেন, আসামীদের বিরুদ্ধে আমরা অপহরন, হত্যা, ষড়যন্ত্রের অভিযোগের আদালতে প্রমান দিয়েছি। এজন্য আমি আদালতে সকল আসামীর মৃত্যুদন্ডের প্রার্থনা করেছি।
অন্যদিকে আদালতে আসামী তারেক সাঈদের আইনজীবি সাবেক পিপি সুলতানুজ্জামান জানান, আজ মামলার যুক্তিতর্কের দিন ধার্য ছিলো। রাষ্ট্রপক্ষের পিপি দুইঘন্টাব্যাপী যুক্তিতর্কের শুনানী করেন। তিনি আসামীদের শাস্তি দাবী করেন। আসামী পয়ত্রিশ জনের মধ্যে ১২ জন আসামী পলাতক রয়েছে। আসামীদের পক্ষে রাষ্ট্রীয় আইনজীবি নিয়োজিত আছেন। এই আইনজীবিরা তাদের আসামীর পক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ তাদের দাবী করেছে আসামীদের মৃত্যুদন্ড দাবী করেছে। আমরা বলতে চাই আসামীরা নির্দোষ। আমরা তাদের বেকসুর খালাস দাবী করি।
গত ২৪ অক্টোবর পাবলিক প্রসিকিউর এডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন ফৌজদারী কার্যবিধির ৩৪২ ধারায় আদালতে নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ৪ জনের অভিযোগ পড়ে শোনান। তারা নিজেদের নির্দোষ দাবি করে। গত ৩১ অক্টোবর ১৯ আসামীর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য প্রমাণে পাওয়া অভিযোগ পড়ে শোনানো হয়। সেসময় আসামীরা নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন। ৫ আসামী লিখিত বক্তব্য দিয়েছিল।
২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ফতুল্লার লামাপাড়া এলাকা থেকে প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম ও সিনিয়র আইনজীবি চন্দন সরকারসহ ৭ জনকে অপহরণ করা হয়। তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা নদী থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় পৃথক দুটি মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তা ৩৫ আসামীকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। বর্তমানে র‌্যাবের ৮ সদস্যসহ ১২ জন পলাতক রয়েছে।#