সব দলমতের লোক আমার পক্ষে ২২তারিখে রায় দেবে-আইভী

672

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: প্রতীক বরাদ্ধ পাওয়ার পর আওয়ামীলীগের মনোনিত মেয়র প্রার্থী ডা: সেলিনা হায়াত আইভী বলেছেন, দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হলেও এটি স্থানীয় সরকার নির্বাচন। এই নির্বাচনের ফলে ব্যাক্তির পরিবর্তন হতে পারে কিন্তু ক্ষমতার পরিবর্তন হবে না। সাধারন মানুষ এটা বোঝে। তাই জাতীয় ইস্যুগুলো এই নির্বাচনে কোন প্রভাব ফেলবে না। আমি আশা করি আমার দলের বাইরেও সব দলমতের লোক আমার পক্ষে ২২তারিখে রায় দেবে।
তবে প্রার্থীদের সতর্ক করে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন রিটানিং অফিসার নূরুজ্জামান তালুকদার জানিয়েছেন, সার্বিক পরিস্থিতি একন পর্যন্ত ঠিক আছে। আজ প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্ধ করা হয়েছে। আজ থেকে ২৭টি ওয়ার্ডে ম্যাজিষ্ট্রেট কাজ করবে। কেউ নির্বাচনী আচরন বিধি আইন না মেনে পার পাবে না।
সকাল ১০টা থেকে প্রতীক বরাদ্ধ শুরু করে নির্বাচন কর্মকর্তা। দুপুর বারটার মধ্যে মেয়র প্রার্থী ৭জন সাধারন কাউন্সিলর প্রার্থী ১৫৬জন,সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর আসনে ৩৮জন প্রার্থীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্ধ করা হয়েছে।
সকাল এগারোটায় প্রথম প্রতীক বরাদ্দ করা হয় বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির মেয়র প্রার্থী এডভোকেট মাহবুবুর রহমান ইসমাইলকে। তার প্রতীক কোদাল। এরপর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর প্রার্থী মুফতি মাসুম বিল্লাহ পাখা প্রতীক লাভ করেন। ইসলামী ঐক্যজোটের মুফতি এজহারুল ইসলাম পান মসজিদের মিনার প্রতীক। এলডিপি’র কামাল প্রধান পান ছাতা প্রতীক। কল্যান পার্টির মেয়র প্রার্থী রাসেল ফেরদৌস সোহেল মোল্লা হাতঘড়ি প্রতীক। সাড়ে এগারোটায় নৌকা প্রতীক গ্রহন করেন আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী ডাঃ সেলিনা হায়াৎ আইভী। এর পরেই বিএনপির মনোনিত প্রার্থী শাখাওয়াত হোসেন খান ধানের শীষ প্রতীক গ্রহন করেন। প্রতীক বরাদ্দ উপলক্ষে নগরীতে উৎসব মুখর পরিবেশ তৈরী হয়। বিভিন্ন দলের ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের সমর্থকরা প্রার্থীর প্রতীক পাওয়ার পর নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সামনে থেকে মিছিল করতে করতে নিজ একালাকায় যায়। এসময় নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়ক মিছিলের নগরীতে পরিনত হয়। ###