শীতলক্ষ্যা নদীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে কামরুল হাসান মুন্না’র বাধা

260

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ নারায়ণগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীর সীমানায় গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে সাবেক কাউন্সিলর ও শ্রমিক লীগ নেতার বিরুদ্ধে বাধা দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সোমবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে বিকেল পর্যন্ত নগরীর সৈয়দIMG_20171204_150148পুরের আলামিন নগর এলাকায় এই উচ্ছেদ অভিযানে প্রায় অর্ধশতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে বিআইডিব্লউটিএ। উচ্ছেদ অভিযানকালে সাবেক কাউন্সিলর ও শ্রমিক লীগ নেতা কামরুল হাসান মুন্না’র বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযানে বাধা দেয়ার অভিযোগ। এসময় মুন্নার সঙ্গে বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মকর্তাদের বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। এতে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। পরে উভয়পক্ষ আলোচনা পরে সিদ্ধান্ত হয় দুই পক্ষের যৌথ সার্ভের পর সীমানা পিলার পুন:স্থাপন করার সিদ্ধান্ত নিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।
বিআইডব্লিউটিএ’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শামীমা বানু শান্তির নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন বিআইডব্লিউটিএ’র নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক মোঃ গুলজার আলী, উপ-পরিচালক মোঃ শহিদুল্লাহ, নারায়ণগঞ্জ নৌ থানা পুলিশের পরিদর্শক আবু তাহের খান প্রমুখ।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বেলা সাড়ে ১১টা থেকে নগরীর আলামিন নগর এলাকায় শীতলক্ষ্যার নদীর সীমানা পিলারের ভেতর অবৈধভাবে গড়ে ওঠা শারমিন জুট বেলার্সের জেটি, পাকা দেয়াল, সেমি পাকা ও কাচা অস্থায়ী স্থাপনা ভেকু দিয়ে গুড়িয়ে দেয়া হয়। স্থাপনাগুলো নদীর সীমানা পিলারের ভেতর গড়ে তোলা হয়েছিল। একে বিআইডব্লিউটিএ’র ভেকুর সাহায্যে অবৈধ স্থাপনাগুলো গুড়িয়ে দেয়া হয়। দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কাউন্সিলর ও মহানরগ শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান মুন্নার মালিকানাধীন প্লাস্টিকের সুতা তৈরীর কারখানার ভেতরে সীমানা পিলার পুন:স্থাপন করতে গেলে তাদেরকে বাধা দেন এবং উচ্ছেদ কাজ বন্ধ করে দেয় মুন্না ও তার লোকজন। এসময় মুন্নার সঙ্গে বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মকর্তাদের বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। এতে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। পরে উভয়পক্ষ আলোচনা পরে সিদ্ধান্ত হয় দুই পক্ষের যৌথ সার্ভের পর সীমানা পিলার পুন:স্থাপন করার সিদ্ধান্ত নিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। এসময় পরে উচ্ছেদকারী দল ওই কারখানার একটি দেয়াল ভেঙ্গে দেয়া হয়।
সাবেক কাউন্সিলর মুন্না সাংবাদিকদের বলেন, আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। যদি রাস্তা এবং নদীর জন্য আমাকে আরো ১০০ ফুটও ছাড়তে হয় তাতে আমি রাজি আছি। কিন্তু যৌথ সার্ভে না করে আমার জমিতে সীমানা পিলার পুনঃস্থাপন করার বিষয়ে আমার আপত্তি রয়েছে। এজন্যই আমি সীমানা পিলার পুনঃস্থাপনে বাধা দিয়েছি। তবে পূর্বে স্থাপনকৃত সীমানা পিলারের ভেতরে আমার স্থাপনা যতটুকু রয়েছে সেটা আমি নিজেই ভেঙ্গে দিচ্ছি। পরে সাবেক কাউন্সিলর মুন্না নিজেই দাড়িয়ে থেকে তার স্থাপনার বর্ধিত একটি দেয়াল ভেঙ্গে দেন।
বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক গুলজার আলী জানান, সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত প্রায় অর্ধশত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। দখলদারদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান চলবে। দখলদাররা যতই প্রভাবশালী হোক না কেন তাদেরকে কোন ধরনের ছাড় দেয়া হবেনা। তিনি আরো জানান, শীতলক্ষ্যার তীর রক্ষায় আরো ১৫ কিলোমিটার ওয়াকওয়ে নির্মাণ কাজ শীঘ্রই শুরু হতে যাচ্ছে। শীতলক্ষ্যার তীর রক্ষায় সরকারের পাশাপাশি জনপ্রতিনিধিদেরও এগিয়ে আসা প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন। #