ভাষা শহীদদের স্মরনে প্রেরণা সংগঠনের আলোচনা সভায় ত্বকী হত্যার বিচার দাবি

595

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদপন উপলক্ষে ভাষা শহীদদের স্মরনে DSC_0633প্রেরণা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের উদ্যোগে চিত্রাঙ্কন, কবিতা আবৃত্তি ও দেশত্বোবোধক গানের প্রতিযোগিতা আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২১ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার দেওভোগ পাক্কা রোড (খানকা সড়ক) এলাকায় দিনব্যাপী নানা কর্মসূচীর মধ্যে দিবসটি পালন করা হয়েছে। বিকেলে ভাষা শহীদদের স্মরনে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান DSC_0598অতিথি ছিলেন নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক খবরের পাতা’র সম্পাদক এ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান মাসুম, বিশেষ অতিথি ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ সার্কেল মো: শরফুদ্দীন, এসময় অনান্য অতিথির মধ্যে উপস্থিথ ছিলেন, মো: আব্দুল হালিম, প্রেরনা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের উপদেষ্টা ইকবাল হোসেন, আক্তার হোসেন, আবুল হাসনাত শান্ত, সালাউদ্দিন। প্রেরণা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সভাপতি মানিক মিয়া উজ্জলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভার শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন প্রেরণা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাধারন সম্পাদক হাসান উল রাকিব। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মো: সায়েদুল ইসলাম শাকিল।

DSC_0673আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি এ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান মাসুম বলেন, ভাষা শহীদদের স্মরনে কোমলমতি শিশুরা আজ কবিতা আবৃত্তি ও দেশত্বোবোধক গানের প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানিয়েছে এবং ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস সম্পর্কে জেনে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় ছবি একেছে। এতে শিশু কিশোরদের মনবিকাশ ঘটবে। নারায়ণগঞ্জে এই শিশু-কিশোরদের নিরাপত্তা ছিল হুমকির মুখে। যেমন তানভীর মোহাম্মদ ত্বকীর মত প্রতিভাবান কিশোরকে সন্ত্রাসীরা নির্মম ভাবে হত্যাকরেছে। এমনি করে নারায়ণগঞ্জে আরো বেশ কয়েকটি হত্যাকান্ড সংঘটিত করেছে সন্ত্রাসীরা। আমরা এসব হত্যাসহ ত্বকী হত্যার বিচার চাই। আগামীতে নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ এ হত্যাকারীদের প্রতিহত করতে। আর সরকারের প্রতি দাবি জানিয়ে বলেন, হত্যাকারীদের বিচার করা না হলে সমাজ থেকে অপরাধ প্রবনাতা কমবে না। তাই সাত খুনের বিচার হয়েছে। এমননি করে ত্বকী হত্যার বিচার করা হোক।
DSC_0650এসময় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে, নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ সার্কেল মো: শরফুদ্দীন বলেন, সমাজের অপরাধ প্রবনতা নির্মূল করতে এবং সাধারন মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ সর্বক্ষন মানুষের পাশে আছে। আজ প্রেরণা সংগঠন ভাষা শহীদদের স্মরন করতে শিশু কিশোরদের প্রতিযোগিতার মাধ্যমে প্রতিভা বিকাশে সুযোগ সৃস্টি করে দিয়েছে। আগামী দিনে এই শিশুরাই সমাজ তথা রাষ্ট্র্রের গুরুত্বপূর্ন দায়িত্ব পালনে নিয়োজিত হবে। আমরা প্রেরণা সামাজিক ও সাংস্কৃতি সংগঠনের এমন কর্মসূচীকে সাধুবাদ জানাই।
DSC_0591ভাষা শাহীদদের স্মরনে তিনটি গ্রুপে নয়টি বিষয়ে কয়েকশ শিশু কিশোর প্রতিযোগিত অংশগ্রহন করেন। এর মধ্যে নয়টি বিষয়ে প্রথম দ্বিতীয় ও তৃতীয় মোট ২৭ জন বিজয়ীর মেধ্য অতিথিরা পুরস্কার বিতরন করেন। ###