বন্দরে লিখন হত্যা মামলায় তিন আসামীর ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর

219

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার শান্তিনগর এলাকায় চুরির মিথ্যা অপবাদ দিয়ে লিখন নামের এক যুবককে বাড়ি থেকে ধরে এনে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত তিন আসামীর প্রত্যেককে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ জানান, আজ রবিবার সকালে মামলার প্রধান আসামী সাদ্দাম, তার ভাই সানি ও সহযোগী টিটিুকে নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আশিক ইমামের আদালতে হাজির করে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আসামীদের পাঁচদিন করে রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত প্রত্যেককে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
গত ১০ মার্চ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চুরির অপবাদ দিয়ে শান্তিনগর এলাকার আমানউল্লার ছেলে লিখন ও তার দুই চাচাতো ভাই জামাল ও হৃদয়কে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় একই এলাকার সূরুজ মিয়ার চার ছেলে সাদ্দাম, মঞ্জুর, বায়েজিদ ও সানি। পরে তাদের নিজ বাড়িতে আটক করে তিন ভাইয়ের উপর চালানো হয় অমানুষিক নির্যাতন। এসময় পিটিয়ে ও কুপিয়ে লিখনকে হত্যা করা হয়। তার দুই ভাই হৃদয় ও জামালকে একইভাবে নির্যাতন করে মারাত্বক আহত করা হয়। পরে এই দুইজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় নারায়ণগঞ্জ ৩শ’ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অভিযুক্ত চার ভাই সাদ্দাম, মঞ্জুর, বায়েজিদ ও সানি এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী বলে এলাকাবাসী জানায়। তাদের মাদক ব্যবসায় সহযোগিতা না করাতেই চুরির মিথ্যা অপবাদের নাটক সাজিয়ে পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে বলে নিহত লিখনের পরিবার থেকে অভিযোগ করা হয়। হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ওইদিনই অভিযুক্ত সাদ্দামকে আটক করে। পরে তার ভাই সানি ও সহযোগী টিটুকে আটক করা হয়। হত্যাকান্ডের পর ওইদিন রাতে নিহত লিখনের বড় ভাই জামান হোসেন বাদি হয়ে অভিযুক্ত চার ভাইসহ ৯ জনকে আসামী করে বন্দর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। ###