ফতুল্লার বিসিকে ক্রনী সোয়েটার্সের ৯২৮ শ্রমিককে ছাঁটাই, বিক্ষোভ

251

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বিসিক শিল্পনগরীতে অবস্থিত ক্রনী সোয়েটার্স নামের একটি রফতানীমুখী গার্মেন্টের ৯২৮ জন শ্রমিককে একযোগে ছাঁটাই করা নিয়ে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে শ্রমিকরা। মঙ্গলবার সকালে প্রতিষ্ঠানের প্রধান ফটকে ছাঁটাইয়ের নোটিশ দেখতে পেয়ে শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। কারখানাটির মালিক বিকেএমইএ’র প্রথম সহসভাপতি আসলাম সানি। তিনি নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী ওসমান পরিবারের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে ফতুল্লায় খাল দখল করে ভবন নির্মাণেরও অভিযোগ রয়েছে।
ইউনাইটেড ফেডারেশন অব গার্মেন্টে ওয়ার্কার্স নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সেন্টু বলেন, মঙ্গলবার সকালে কারখানাটির ফটকে শ্রম আইনের ২০ ধারা মোতাবেক ৯২৮ জন শ্রমিককে ছাঁটাইয়ের নোটিশ দেখতে পেয়ে শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে ফতুল্লার আলীগঞ্জস্থ লেবার হলে সমবেত হয়। পরে ইউনাইটেড ফেডারেশন অব গার্মেন্টে ওয়ার্কার্স কেন্দ্রীয় কার্যকরী সভাপতি কাউসার আহাম্মেদ পলাশ সমাবেশে শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, শ্রম আইন অনুযায়ী মালিকপক্ষ শ্রমিকদের ছাঁটাই করতে পারে। তবে সেটা হতে হবে যুক্তিসঙ্গত। মালিকপক্ষ শ্রম আইনের যে ধারা অনুযায়ী শ্রমিকদের ছাঁটাই করতে চাইছেন সেটা বেআইনী। শ্রমিকদের ছাঁটাই করতে হলে শ্রম আইনের ২৬ ধারা অনুযায়ী করতে হবে। অন্যথায় আমরা কঠোর আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবো।
বিকেএমইএ’র সহসভাপতি (অর্থ) জিএম ফারুক বলেন, কারখানাটিতে আগে হ্যান্ড নিটিংয়ের মাধ্যমে কাজ করা হতো। কিন্তু বর্তমানে হ্যান্ড নিটিংয়ের মাধ্যমে অর্ডার পাওয়া যাচ্ছেনা। এ কারণে মালিকপক্ষ জ্যাকার্ড মেশিন দিয়ে উৎপাদনে যাবে। ওই মেশিন ব্যবহারে জনবল অনেক কম লাগবে। এ কারণে মালিকপক্ষ শ্রম আইনের ২০ ধারা অনুযায়ী ছাঁটাইয়ের নোটিশ দিয়েছেন।
নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইলতুতলিশ বলেন, নতুন মেশিন ব্যবহারে জনবল কম লাগবে বিধায় মালিকপক্ষ শ্রম আইন অনুযায়ী ছাঁটাইয়ের নোটিশ দিয়েছে বলে জানতে পেরেছি। বিষয়টি আলোচনার মাধ্যমে উভয় পক্ষকে সমাধানের আহবান জানানো হয়েছে। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।#