পাইরেসী চক্রের ১৮ সদস্য গ্রেপ্তার,বিপুল পরিমাণ পাইরেসী সরঞ্জাম উদ্ধার

5545

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে বিপুল পরিমাণ পাইরেটেড ও অশ্লীল অডিও-ভিডিও সিডি এবং সিডি তৈরীর ও ভিডিও প্রদর্শনীর সরঞ্জামাদিসহ পাইরেসী চক্রের ১৮ সদস্য গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১। উদ্ধার করা হয়েছে ২৭টি মনিটর, ৩০টি সিপিইউ, ১৭টি বীড বক্স, ৩২টি স্পীকার, ১৯টি কীবোর্ড, ১৯টি মাউস, ২টি প্রজেক্টর, ৩ হাজার ৪শ’৮৫টি সিডি, বেশকিছু পেনড্রাইভ, কার্ড রিডার ও মেমোরী কার্ড উদ্ধার করা হয়।
গত বুধবার ভোরে র‌্যাব-১১ ও চলচ্চিত্রে অশ্লীলতা ও পাইরেসি বিরোধী টাস্কফোর্স নারায়ণঞ্জের সোনারগাঁ কাচপুর লাভলী সিনেমা হল ও আমন্ত্রণ সিনেমা হলসহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।
বিকেলে সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজীতে র‌্যাব-১১ ব্যাটালিয়ন কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফ্রিংয়ের আয়োজন করা হয়। সেখানে চলচ্চিত্র পরিচালক কাজী হায়াৎ, চলচ্চিত্র অভিনেতা অমিত হাসান, জাজ মালিমিডিয়ার সিইও আলীম উল্লাহ, বাংলাদেশ মিউজিক ইন্ড্রাষ্টিজের সহ-সভাপতি গীতিকার হাসান মতিউর রহমান, খলনায়ক ডন, শিবা শানু, শিল্পী পথিক নবী, এলিজা পুতুল, ট্রাস্কফোর্স সদস্য শহীদুল ইসলাম ও দেওয়ান আরিফ প্রমুখ।
প্রেস বিফ্রিংয়ে চলচ্চিত্র পরিচালক কাজী হায়াৎ বলেন, পাইরেসী পুরো চলচ্চিত্র ইন্ড্রাষ্ট্রিকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। আমরা কোটি কোটি টাকা খরচ সিনেমা তৈরী করি। কিন্তু পাইরেসীর কারণে দর্শক মুখী হচ্ছে না।
চলচ্চিত্র অভিনেত্রা অমিত হাসান বলেন, চলচ্চিত্র পাইরেসীর কারণে মামলা হলেও পাইরেসী বন্ধ হচ্ছে না। তিনি পাইরেসী বন্ধে আইন করার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।
অধিনায়ক লে.কর্ণেল কামরুল হাসান জানান, বুধবার ভোরে কাঁচপুরে লাভলী ও আমন্ত্রণ সিনেমা হলসহ নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে পর্ণোগ্রাফি ও পাইরেসী চক্রের সদস্য মনির হোসেনসহ ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই পাইরেসী চক্রের সঙ্গে সিনেমা হলের কর্মচারী ও মালিক জড়িত রয়েছে। তারা মিউজিক্যাল ষ্টুডিও এবং এ্যাডফার্মের কলাকুশলীদের সাথে যোগাযোগ রাখে এবং তাদের নিকট হতে নতুন মিউজিক ভিডিও সমূহ সংগ্রহ করে। এ সকল ভিডিওর সাথে তারা অশ্লীল ছবির অংশ সংযোগ করে নতুন করে সিডি তৈরী করে বাজারে ছাড়ে। ###