নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে নানা আয়োজনে স্বরস্বতি পূজা উদযাপিত

198

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: উৎসব মুখর পরিবেশে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে স্বরস্বতি পূজা উদযাপিত হচ্ছে।  এ উপলক্ষে সবচেয়ে বড় আয়োজনটি ছিলো নগরীর চাষাড়ার রামকৃষ্ণ মিশনে। সকাল নয়টা থেকে এখানে পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। মিশনের মূল হলে ছিলো ভক্তদের আরাধনা। বাইরে ছিলো দর্শনার্থীদের ভীড়।
ভক্তিমূলক সঙ্গীতে মুখরিত চারপাশ। পূজার অন্যতম আয়োজক ও লেখক তারাপদ আচার্য্য জানান, বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভক্তদের ভীড় বাড়বে। মাঘ মাসের শ্রী পঞ্চমীতে দেবী মর্ত্যে আগমন করেন। এই দিনে স্বরস্বতি পূজা অনুষ্ঠিত হয়। যদিও এটা মূলতঃ ছাত্র-ছাত্রীরা করে কিন্তু বিদ্যার দেবী সাড়া পৃথিবীর। বর্তমানে সর্বত্র বিদ্যার অবক্ষয় হচ্ছে। আমি আশা করি সবার মাঝে যেন জ্ঞানের আলো ছড়িয়ে পড়ে।
পূজায় যজ্ঞ, ভক্তিমূলক সঙ্গীতানুষ্ঠান, অঞ্জলী, হাতেখড়ি, প্রসাদ বিতরন কার্যক্রম চলে দুপুর পর্যন্ত। এখানে শতাধিক শিশু হাতেখড়ি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিদ্যা-শিক্ষার জগতে প্রবেশ করে।
স্বরস্বতি বিদ্যার দেবী। তাই স্কুল কলেজে ছিলো পূজার বর্নাঢ্য আয়োজন। সকালে নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ, তোলারাম কলেজ, নারায়ণগঞ্জ হাইস্কুল, বিদ্যা নিকেতন হাইস্কুলসহ নগরীর অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বরস্বতি পূজা উদযাপিত হয়। বিদ্যা নিকেতন হাইস্কুলে চার শতাধিক শিশুর হাতে খড়ি হয় বলে জানান স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আব্দুস সালাম।
নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজে হিসাব বিজ্ঞানের সহকারি অধ্যাপক রতন কুমার দাস বলেন, পনের দিনে আগে থেকেই পূজার প্রস্তুতি ছিলো কলেজে। এ দেবী বিদ্যার দেবী। জ্ঞানের আলো নিয়ে তিনি মর্ত্যে অবতীর্ন হন। সনাতন ধর্মের মানুষ বিশ্বাস করে যে পূজা করলে জ্ঞান সাধনায় অগ্রগতি লাভ করা যায়। #