ধলেশ্বরী নদীতে ট্রলার ডুবি ॥ ৪ জনের লাশ উদ্ধার :এখনো নিখোঁজ ২

172

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নারায়ণগঞ্জে ধলেশ্বরী নদীতে বালুবাহী ট্রলারের ধাক্কায় মাটিবাহী ট্রলার ডুবির ঘটনায় চার জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।  তবে এখনো নিখোঁজ রয়েছেন আরো ২জন শ্রমিক। মৃতদেহ উদ্ধার হওয়া চার শ্রমিকের নাম তালেব,নেজাব, সুজন, শাহীন । এখনো নিখোঁজ রয়েছে, সুজব ও শরিফুল।  নিহত ও নিখোঁজদের সকলেই ইটভাটার মাটিবাহী ট্রলারের শ্রমিক। এদের প্রত্যেকের বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া থানার গারেশ্বর গ্রামে। আজ বুধবার দুপুরে আলীরটেক ইউনিয়নের গোপচর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে । ঘটনার পর বিকেলে নৌ-পুলিশ ও বিআইডব্লিউটিএ’র ডুবুরিদল উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করেছে। এখন পর্যন্ত তারা ডুবে যাওয়া ট্রলারটির অবস্থান শনাক্ত করতে পেরেছে। নিহত ও নিখোঁজদের পরিবারের স্বজনরা এখ পর্যন্ত নদীর পাড়ে  করছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ  জানায়, আজ বুধবার দুপুর দেড়টায় কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে ট্রলারে মাটি নিয়ে ৩৫ জন শ্রমিক বুড়িগঙ্গার বক্তাবলীর একটি ইটভাটার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল। ট্রলারটি গোপচর এলাকায় এলে মুন্সিগঞ্জগামী একটি বাল্কহেডের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটলে মাটিবাহী ট্রলারটি নদীতে ডুবে যায়। এ সময় ট্রলারটিতে থাকা ৩০-৩৫ জনের মধ্যে সকলেই তীরে উঠতে পারলেও এখনো ৬ জন নিখোঁজ রয়েছে। তারা হলো শরীফুল, নিজাব, সুজন, সুজব, শাহীন ও তালেব। তাদের সকলের বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া থানার গারেশ্বর গ্রামে।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে নৌ পুলিশ ও বিআইডাব্লিওটিএ’র ডুবুরিদল নিখোঁজদের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।
নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) গাউছুল আজম ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে রাত সোয়া নয়টায় জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত ৪জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতদের দাফন কাফনের জন্য জেলা প্রশাসন থেকে জনপ্রতি ২০ হাজার টাকা করে দেয়া হবে। ###