ত্বকী হত্যার বিচার সঠিক সময়ে পেলে অনেক হত্যাকান্ড কমে যেত- মেয়র আইভী

1580

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: শিশু স্বার্থ বিরোধী বিষয়ে না সমাবেশ করেছে খেলাঘর আসর নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটি। বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের নগরীর চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সমাবেশে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে সহ¯্রাধিক শিশু-কিশোর অংশ নেয়। সমাবেশে শিশু-কিশোররা শিশু হত্যা, শিশু নির্যাতনসহ ১০ বিষয়ে অতিথিদের সঙ্গে সমস্বরে তিনবার করে না উচ্চার করেন শিশু-কিশোররা।
এ সমাবেশে অতিথি হিসেবে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, শিশু হত্যা, শিশু নির্যাতন বাংলাদেশে একটি সস্তা জিনিসে পরিনত হয়েছে। জীব হত্যা মহাপাপ সেখানে প্রতিদিন মানুষ হত্যা করা হচ্ছে, উপরন্ত শিশু হত্যা বেড়ে গিয়েছে। নারায়ণগঞ্জে চার বছর আগে ত্বকী হত্যা দিয়ে যখন শুরু হলো পর পর বহু হত্যাকান্ড এখানে শুরু হল্।ো ত্বকী হত্যার বিচার যদি আমরা সঠিক সময়ে পেতাম, তাহলে নারায়ণগঞ্জের আনাচে কানাচে অনেক হত্যাকান্ড কমে যেত। শিশু হত্যা কিন্তু কমেনি বরং আগের চেয়ে একটু বেড়েছে। আমরা আশা করি খুব শিগ্রিরই আমাদের বর্তমান সরকার যেভাবে দ্রুত বিচারকার্য সমাধানের জন্য কাজ করে যাচ্ছে, তার মধ্যে এ শিশু হত্যার আমরা বিচার চাই। অনেক যায়গায় দেখা যাচ্ছে ছোট ছোট বাচ্ছাকে দিকে কাজ করানো হচ্ছে। সেই বাচ্ছাদের কোন একটু বুল ত্রুটি হলেই আমাদের মত বড়া তাদের মারধর করছে, আমরা বাড়িঘরে কাজের মেয়ে বাচ্চাদেরও মারধর করি। এই মানুষিকতার পরিবর্তন আমাদের করতে হবে। আমরা নিজেরা পরিবর্তন না হলে বাচ্চাদের পরিবর্তন করতে পারবো না। আগে আমাদের পরিবর্তন করে বাচ্চাদের পরিবর্তন করতে হবে।
খেলাঘর জেলা কমিটির সভাপতি রথীন চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে সমাবেশে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী, ডাকসুর সাবেক ভিপি ও কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের চেয়ারপার্সন প্রফেসর মাহফুজা খানম, মুক্তিযোদ্ধা শিল্পী ও খেলাঘর আসরের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য লায়লা হাসান, সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহবায়ক রফিউর রাব্বি, খেলাঘর আসর কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম। এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত হয়ে শিশুদের সাথে শিশু স্বার্থ বিরোধী বিষয়গুলোকে প্রতিহত করার আহবানে একাত্মতা প্রকাশ করেন। জেলাস্থ বিভিন্ন শাখার তত্ত্বাবধানে সহ¯্রাধিক শিশু-কিশোরদের সঙ্গে তাদের অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশে বক্তারা শিশু হত্যা, নির্যাতন ও শিক্ষা ব্যবস্থায় সাম্প্রদায়িকতার উৎকন্ঠিত খেলাঘর। শিশু হত্যা ও নির্যাতন বন্ধে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। শিশুর সাবলীল বেড়ে ওঠা ও মেধা বিকাশের উদার পরিবেশ তৈরী করতে হবে।
সমাবেশে জাতীয় সংগীত গেয়ে একটি প্রতিবাদী র‌্যালি নগরীর চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে শুরু হয়ে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাব ঘুরে শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়। ###