খানপুরে অনুমোদন ছাড়া লোহার সিড়ি নির্মান কাজ বন্ধ করে দিয়েছে সিটি কর্পোরেশন

2587

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নগরীর খানপুর জোড়া ট্যাকিং এলাকায় সিটি কর্পোরেশনের সড়কের পাশে অনুমোদন ছাড়া বেআইনী ভাবে ক্লিনিক প্রতিষ্ঠানের জন্য লোহার সিড়ি নির্মান কাজ বন্ধ করে দিয়েছে সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ। এলাকাবাসির অভিযোগে আজ রোবাবর বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের সার্ভেয়ার কালাম ঘটনাস্থল পরিদর্শ করে অবৈধ সিড়ি নির্মান কাজ বন্ধ করে দেয়। এ সময় ওই সিড়ি নির্মানে সিটি কর্পোরেশনের কোন অনুমতির কাগজ পত্র দেখাতে পারেনি বাড়ির মালিক পক্ষ।
ঘটনাস্থলে গিয়ে খোজ নিয়ে জানা গেছে, খানপুর জোড়া ট্যাকিং এলাকায় জাহাঙ্গীর মিয়ার বাড়ির দোতলায় একটি প্রতিষ্ঠানকে ক্লিনিক ভাড়া দিয়েছে বাড়ির মালিক জাহাঙ্গীর। আজ রোববার সকালে বাড়ির মালিক জাহাঙ্গীর মিয়া দোতলার ক্লিনিকের জন্য সিটি কর্পোরেশনের সড়কের সামনে কোন রকম অনুমতি ছাড়াই অবৈধ ভাবে একটি লোহার সিড়ি তৈরী করছে। এ অভিযোগ পেয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন এর সার্ভেয়ার ঘটনাস্থলে গিয়ে এর স্বত্যতা পেয়ে সিড়ি নির্মান কাজ বন্ধ করে দেয়।
তবে এ বিষয়ে তথ্য জানতে ঘটনাস্থলে গিয়ে বাড়ির মালিক জাহাঙ্গীর মিয়াকে পাওয়া যায়নি। পরে তার মোবাইল সেট ফোন ০১৯১৩১১১৬৩৫ নাম্বারে ফোন করে এ বিষয়ে তথ্য জানতে কয়েকদফা ফোন করা হলে তিনি মোবাইল কল রিসিভ করেনি।
এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের স্থানীয় কাউন্সিলর শওকত হাসেম শকু জানিয়েছেন, খানপুর জোড়া ট্যাকিং এলাকার এ বাড়িটি গত আট বছর আগে ঝুকিপূর্ন হিসেবে চিহ্নিত করেছে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন। এ বাড়ির মালিক সিটি কর্পোরেশনের অনুমতি না নিয়ে সিটি কর্পোরেশনের জায়গায় অবৈধ ভাবে লোহার সিড়ি নির্মানের চেষ্টা করছিল। সিটি কর্পোরেশন অভিযান চালিয়ে এ অবৈধ কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের সার্ভেয়ার কালাম জানিয়েছেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেছি সিটি কর্পোরেশনের জমিতে অনুমতি ছাড়াই লোহার সিড়ি নির্মান কাজ করছে। সম্পন্ন অবৈধ ভাবে এ কাজ করায় নির্মান কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে কথা বলার জন্য বাড়ি মালিককে খবর পাঠানো হয়েছে। এ সিড়ি সড়িয়ে না নিলে দু একদিনের মধ্যে অবৈধ সিড়িটি উচ্ছেদ করা হবে। #####