কারাবন্দীদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে স্বজনদের কথা বলার উদ্যোগ –স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

48

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি বলেছেন, দেশের প্রত্যেকটি কারাগারকে সংশোধনাগার হিসেবে গড়ে তোলা হবে। কারাবন্দীদের মানুসিক বিকাশের জন্য খেলাধুলাসহ বিনোদনের ব্যবস্থা করা হবে। কারাবন্দীরা যাতে স্বজনদের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন মনে না করেন সে কারণে মোবাইল ফোনে কথা বলার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বন্দীরা যাতে ভবিষ্যতে কর্ম জীবনে প্রতিষ্ঠিত হতে পারে তাদেরকে বিভিন্ন কারিগরি প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে উদ্বোধন করা গার্মেন্টস বন্দীরাই চালাবেন। পর্যায়ক্রমে দেশের অন্যান্য কারাগারেও এই সুবিধা সংবলিম্ব ইউনিট গড়ে তোলা হবে। কারাগারের ভেতরে মাদকসহ অবৈধ কোন জিনিস যাতে ঢুকতে না পারে সে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এজন্য কারারক্ষীদের বিশেষ প্রশিক্ষণ ও গেইটে স্ক্যানের মেশিন বসানো হয়েছে। এর ফাঁক ফোকর দিয়ে দুই একটি জিনিস ঢুকে গেলেও আমরা এ ব্যাপারে সর্তক রয়েছি।
বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে বন্দীদের সংশোধন ও পুর্নবাসনের জন্য নবমির্তি গার্মেন্টস ইন্ড্রাস্ট্রি এবং জামদানী উৎপাদন কেন্দ্র “রিজিলিয়ান্স” উদ্বোধন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।
আইজি প্রিজন সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন বলেন, দীর্ঘ মেয়াদী বন্দীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে প্রশিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হবে এবং স্বল্প মেয়াদী বন্দীদেরও প্রশিক্ষণ দিয়ে এই কাজে লাগানো হবে। পরিবেশ অনুযায়ী বন্দীদের কর্ম সংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে।
এদিকে সাংসদ ও বিকেএমইএ সভাপতি সেলিম ওসমান বলেছেন, কারাগার কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ বায়ার আসার সুযোগ দিলে এখান থেকে তৈরী পোশাক বিদেশে রপ্তানী করে বছরে ১০ থেকে ১৫ লাখ ডলার আয় করা সম্ভব।
এসময় উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য গাজী গোলাম দস্তগীর বীর প্রতীক, সেলিম ওসমান, শামীম ওসমান ও নজরুল ইসলাম বাবু, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের সচিব ফরিদ উদ্দিন আহম্মেদ, আইজি প্রিজন বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন,জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া, পুলিশ সুপার মঈনুল হক প্রমুখ।
পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সম্মেলন কক্ষ উদ্বোধন করেন সেখানে বিভিন্ন স্তরের মানুষের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। পরে তিনি ফতুল্লার পঞ্চবটি বিসিক শিল্পনগরীতে ফায়ার সার্ভিস ও এন্ড সিভিল ডিফেন্স উদ্বোধন করেন। ###