আমি একা হলেও অন্যায়ের প্রতিবাদ করে যাবো-মেয়র আইভী

452

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র ডাঃ সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, আমি সত্য কথা বলে যাবো। অন্যায়ের প্রতিবাদ করে যাবো। কেউ যদি আমার সাথে না-ও থাকে তাহলেও আমি অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলা থেকে পিছপা হবোনা। তিনি বলেন, ২০০৭ সালে আমি নারায়ণগঞ্জের দুইশত বিশ জন মুক্তিযোদ্ধার হোল্ডিং ট্যাক্স আজীবন মওকুফ করেছিলাম। আমাদের দেখে পরে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনসহ অন্যান্য সিটি কর্পোরেশনও করেছিলো। তখন কেউ কেউ বলেছিলো মুক্তিযোদ্ধাদের কর মওকুফ করার কোন নির্দেশনা মন্ত্রনালয়ের নেই। এজন্য আমার বিরুদ্ধে মামলা হবে। আমি জেলেও যেতে পারি। আজ মন্ত্রনালয় নির্দেশ দিয়েছে বারোশত স্কয়ার ফিট পর্যন্ত সকল মুক্তিযোদ্ধার বাড়ির হোল্ডিং ট্যাক্স আজীবন মওকুফের। আমরা পুরো বাড়ির ট্যাক্স-ই মওকুফ করেছি। উচিত কাজ করার জন্য জেলের হুমকি, মামলার হুমকি আমি ভয় পাই না।
সোমবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত মুক্তিযোদ্ধাদের আজীবন ট্যাক্স মওকুফ অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। অনুষ্ঠানে সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তফা কামাল মজুমদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার এডভোকেট নুরুল হুদা, সিটি কর্পোরেশন এর প্যানেল মেয়র ওবায়েদ উল্লাহ, মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কমান্ডার আমিনুল ইসলাম, আব্দুর রাশেদ রাশু, মোহর আলী চৌধুরী, আব্দুল কাদির, আব্দুস সাত্তার মরন।
অনুষ্ঠানে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বসবাসরত মোট ৮২৯ জন মুক্তিযোদ্ধার হোল্ডিং ট্যাক্স আজীবনের জন্য মওকুফ করা হয়।
গত ২৬ মার্চ নারায়ণগঞ্জ ক্লাবে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান হোল্ডিং ট্যাক্স মওকুফ করার বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখেন। এবং মুুক্তিযোদ্ধাদের অনুষ্ঠানে না যাওয়ার আহ্বান জানান। কিন্তু তার আহ্বান উপেক্ষা করে বিপুল সংখ্যক মুক্তিযোদ্ধা অনুষ্ঠানে অংশ নেয়। মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার দেশের বাইরে থাকায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না।#