আজ লাঙ্গলবন্দে শুরু হচ্ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অষ্টমী স্নান

1089

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: ‘হে মহাভাগ ব্রম্মপুত্র হে লৌহিত্য তুমি আমার পাপ হরন কর’ পবিত্র এ মন্ত্র উচ্চারনে মধ্য দিয়ে আজ থেকে শুরু হচ্ছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অষ্টমী স্নান উৎসব। আজ সোমবার বিকেল ৫ টা ৪১ মিনিট ৭ সেকেন্ডে স্নান নের লগ্ন শুরু হবে। আগামীকাল মঙ্গলবার বিকাল ৩টা ৩২ মিনিট ২৭ সেকেন্ডে স্নান নের গ্ন শেষ হবে।

হিন্দু দেবতা পরশুরাম হিমালয়ের মানস সরোবরে গোসল করে পাপমুক্ত হন। লাঙ্গল দিয়ে চষে হিমালয় থেকে এ পানিকে ব্রক্ষ্মপুত্র নদরুপে নামিয়ে আনেন সমভূমিতে। সমভূমিতে আনার পর তিনি যেখানে এসে লাংগল থামিয়ে বা বন্দ করে বিশ্রাম নেন সেই স্থানের নাম লাংগলবন্দ। পৌরাণিক এ কাহিনীকে স্মরন করে কয়েকশত বছর ধরে প্রতিবছর চৈত্রমাসে নির্ধারিত দিনে দেশ বিদেশের লাখ লাখ তীর্থযাত্রী পুন্যলাভের আশায় জড়ো হন। ‘হে মহাভাগ ব্রম্মপুত্র হে লৌহিত্য তুমি আমার পাপ হরন কর’ পবিত্র এ মন্ত্র উচ্চারনে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা প্রেমতলা, অন্নপূর্না, রাজ, কালীঘাটসহ ১৪ টি ঘাটে ও নদের বিভিন্নস্থানে স্নান উৎসবে যোগ দেয়। পুণ্যলাভের আশায় ব্রক্ষ্মপুত্র নদের এ স্নান উৎসবে বাংলাদেশের হিন্দু ধর্মালম্বীদের পাশাপাশি পার্শ¦বর্তী ভারত, নেপাল ভুটানসহ কয়েকটি দেশের লোকজনও অংশ নেন।
লাঙ্গলবন্দ স্নান নোৎসব উদযাপন কমিটির কার্যকরী সদস্য বিশিষ্ট লেখক তারাপদ আচার্য জানান, সোমবার বিকেল ৫ টা ৪১ মিনিট ৭ সেকেন্ডে শুরু হওয়া লগ্ন শেষ হবে পরদিন মঙ্গলবার বিকেল ৩ টা ৩২ মিনিট ২৭ সেকেন্ডে। তবে মঙ্গলবার সকাল ৮ টা ১০ মিনিট থেকে সকাল ১০ টা ৯ মিনিট পর্যন্ত থাকবে অমৃত যোগ। এ স্নান উৎসবকে কেন্দ্র করে বসছে তিনদিন ব্যাপী মেলা । মেলায় নাগরদোলাসহ বাহারী পসরা সাজিয়ে বসেছে দোকানীরা।
এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার মইনুল হক জানিয়েছেন, স্নান উৎসবের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এরই মধ্যে সব রকমের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। পর্যাপ্ত পরিমান আইন আইনশৃংখলা বাহিনী নিয়োজিত করা হয়েছে। ##