পুরোনো গেমও খেলা যাবে এক্সবক্স ওয়ানে

296

মাইক্রোসফট তাদের গেমিং কনসোল এক্সবক্স ওয়ানের একটি বড় হালনাগাদ করেছে। এই হালনাগাদের ফলে গেমাররা তাদের পুরোনো এক্সবক্স সংস্করণের গেম খেলার সুযোগ পাবেন এক্সবক্স ওয়ানে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।
পুরোনো এক্সবক্স ৩৬০ কনসোলের জন্য তৈরি গেম এখন আর এক্সবক্স ওয়ানের জন্য অচল থাকছে না। প্রাথমিকভাবে ১০৪টি এক্সবক্স ৩৬০ গেম খেলা যাবে মাইক্রোসফটের সর্বশেষ এই কনসোলে। ‘গিয়ারস অব ওয়ার’ কিংবা ‘মিরর’স এজ’-এর মতো গেম এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। পরিবর্তন এসেছে কনসোলের ড্যাশবোর্ড ব্যবহারের রীতিতেও। দ্রুতগতিতে বিভিন্ন কাজ যেন করা যায়, সেভাবে সাজানো হয়েছে এই হালনাগাদে। বৃহস্পতিবার থেকে এক্সবক্স ব্যবহারকারীরা এই হালনাগাদ তাঁদের এক্সবক্স কনসোলে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। মাইক্রোসফটের হিসাবে এক কোটি ২০ লাখ কনসোল এ মুহূর্তে হালনাগাদের তালিকায় রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়েছে, তাদের নতুন অপারেটিং সিস্টেম উইন্ডোজ ১০-এ এই পরিবর্তনগুলো বেশ ভালোভাবে মানিয়ে যাবে। এর আগে উইন্ডোজ-৮ অপারেটিং সিস্টেমই সবচেয়ে ভালো পারফরম্যান্স দেখিয়েছে এক্সবক্স ওয়ানে। ড্যাশবোর্ডে এখন কিছু পরিবর্তন করলেও আগামী বছর সেখানে উইন্ডোজ-১০-এর বেশ কয়েকটি ফিচার যোগ করার পরিকল্পনা আছে মাইক্রোসফটের। যোগ হতে পারে তাদের ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট কর্টানা। ১০৪টি গেমের যে তালিকা রয়েছে, সেখানে বেশ কিছু পুরোনো গেম স্থান পেয়েছে, আছে সাম্প্রতিক গেমও। ১৯৯২ সালে মুক্তি পাওয়া ‘উলফেস্টেইন থ্রিডি’ যেমন আছে, তেমনি আছে ‘অ্যাসাসিন’স ক্রিড’। তবে নেই ‘হ্যালো রিচ’, ‘কল অব ডিউটি : ব্ল্যাক অপস’ কিংবা ‘স্কেট থ্রি’-এর মতো জনপ্রিয় সব গেম। তবে মাইক্রোসফট জানিয়েছে, আগামী বছর এ তালিকায় যুক্ত হবে এসব গেমারের প্রিয় গেম। সঙ্গে সঙ্গে তারা গেমারদের সুযোগ দিয়েছে পছন্দের গেম এক্সবক্স ফিডব্যাক সাইটের মাধ্যমে তাদের জানানোর। ১০৪ গেমের তালিকা আরো লম্বা করার পরিকল্পনাই নিয়েছে মাইক্রোসফট। অন্যদিকে মাইক্রোসফটের শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী সনি তাদের গেমিং কনসোল প্লেস্টেশন ৪-এ পূর্ব সংস্করণের গেম খেলার সুযোগ দেওয়া নিয়ে তেমন একটা ভাবছে না।