রপ্তানীতে তৈরি পোষাক প্রস্তুতকারকদের সাটিফিকেশনের সম্মুখিন হতে হয়

486

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  বাংলাদেশ নীট তৈরি পোষাক শিল্পের প্রস্তুতকারক ও রপ্তানীকারকদের অশুল্ক পদক্ষেপ সম্পর্কে মস্যক ধারনা অশুল্ক পদক্ষেপজনিত বিদ্যমান সমস্যা সমাধান র্শীষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে চাষাঢ়া বিকেএমইএর কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে তৈরি পোষাক রপ্তানী কারকদের র্শীষ সংগঠন (বিকেএমইএ ) ও বালাদেশ ট্যারিফ কমিশনের যৌথ উদ্দ্যোগে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয় ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশনের সদস্য আফরোজা পারভীন, বিকেএমইএর সহসভাপতি (অর্থ) জিএম ফারুকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিকেএমইএর দ্বিতীয় সহ-সভাপতি মুনসুর আহমেদ, বিকেএমইএর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মঞ্জরুল হক, সাবেক সহসভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশনের গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল লতিফ, উজডম এট্যায়সের পরিচালক অপূর্ব শিকদার, প্রমুখ। সভায় বিকেএমইএর সাবেক সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম অশুল্ক বাধাঁ হিসেবে ব্যাংকিং চ্যালেঞ্জের কথা উল্লেখ করে বলেন, বেসরকারি বা ব্যাক্তগত আর্থিক পদক্ষেপের কারনে অনেক সময় রপ্তানী বাধাগ্রস্থ হয় । তিনি বলেন, ভারত, কম্বোডিয়া, চীন , ভীয়েতনাম থেকে বাংলাদেশের কারখানাগুলো বৈষম্যের শিকার হচ্ছে।
উজডম এ্যাটয়ার্সের পরিচালক অর্পূব সিকদান বলেন, পন্য রপ্তানীতে বাংলাদেশের তৈরি পোষাক প্রস্তুতকারকদের বিভিন্ন ধরনের সাটিফিকেশনের সম্মুখিন হতে হয় । এই সাঠিফিকেটগুলোর পারম্ভিক ফি অনেক বেশী এবং বার্ষিক নবায়ন ফিও অনেক বেশী । যার কারনে ছোট ও মাঝারি কারখানাগুলি বিভিন্ন সাটিফিকেট অর্জন করতে পারছেনা। অনুমোদনকৃত একরোডেট ল্যবরেটরি পর্যাপ্ত সংখ্যক না থাকায় দেশর বাইরে মান নির্ণয়ের জন্য স্যাম্পল পাঠাতে পারছেনা। এতে উৎপাদন কার্যক্রম ও উৎপাদিত পণ্যের শিপমেন্ট বিলম্ব হচ্ছে। ####