বন্দরে মাদ্রাসার ছাত্রী ধর্ষক রুবেল ও হৃদয় গ্রেপ্তার না হওয়ায় এলাকাবাসীর ক্ষোভ

34

বন্দর প্রতিনিধি: বন্দরে মাদ্রাসার ছাত্রীকে গন ধর্ষনের পর মুখে হারপিক ঢেলে হত্যার চেষ্টার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হলেও এখন পর্যন্ত ধর্ষকসহ তার সহযোগিদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনায় সচেতন মহল চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।
উল্ল্যেখ, গত শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ টায় বন্দর থানার চরঘারমোড়া এলাকার কবির হোসেন মিয়ার মেয়ে মাদ্রাসা ছাত্রী (১৫) তার বিশেষ কাজে চাষাড়া শহীদ মিনার এলাকায় যায়। সেখানে একই থানার ঘারমোড়া কোনাপাড়া এলাকার মোস্তফা মিয়ার ছেলে রুবেল (২২) এর সাথে পরিচয় হয়। পরিচয় সূত্র ধরে শাহীদ মিনার এলাকায় একটি চায়ের দোকানে উভয়ে চা পান করে। আলাপচারিতা এক পর্যায়ে সন্ধ্যা ৬টায় লম্পট রুবেল মাদ্রাসার ছাত্রীকে ফুসলিয়ে ঘারমোড়া কোনাপাড়া এলাকার জনৈক আলমাছ মিয়ার বাগন বাড়ীতে নিয়ে আসে। পরে মেয়েটির ইচ্ছার বিরুদ্ধে রুবেল ও একই এলাকার আলমাছ মিয়ার ছেলে হৃদয় মিলে জোর পূর্বক ধর্ষন করে। এবং ধর্ষনের জানাজানি না হওয়ার জন্য ধর্ষিতার মুখে হারপিক ঢেলে দিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় ধর্ষিতার পিতা কবির হোসেন বাদী হয়ে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করলে এখন পর্যন্ত এ মামলার কোন আসামীকে গ্রেপ্তারের সংবাদ জানাতে পারেনি পুলিশ। মাদ্রাসা ছাত্রীকে গন ধর্ষনের ঘটনায় জড়িত ধর্ষক রুবেল ও তার সহযোগি হৃদয়ের প্রেপ্তার পূর্বক দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি জানিয়েছে সচেতন মহল। ###