বন্দরে চাঁদাবাজির সময় জনতার রোষানলে সাদা পোশাকের এএসআই

35

বন্দর প্রতিনিধি: বন্দরে সাদা পোষাকে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে জনতার রোষানলে পড়ে পালিয়ে বেঁেচছে কামতাল তদন্তকেন্দ্রর এএসআই আমিনুল। গত বুধবার গভীর রাতে লাঙ্গলবন্দ বাস স্ট্যান্ডের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এএসআই আমিনুল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহা সড়কের মালিবাড়ে সুন্দবন ফিলিং স্টেশনের পাশের এক হোটেল কর্মচারি সোহেলকে মাদক ব্যবসায়ী আখ্যা দিয়ে চাঁদা দাবি করে এবং মারধর করে। এসময় হোটেল কর্মচারির ডাক-চিৎকারে লোকজন জড়ো হয়ে কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের সহকারী উপ পরিদর্শক আমিনুল ইসলামকে চ্যালেঞ্জ করলে সে জনতার কাছে চাঁদাবাজির ঘটনা হাতে নাতে ধরে পড়ে। পরে জনতার তোপের মূখে পড়ে হোটেল কর্মচারির কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়া সর্বস্ব ফেরত দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে কৌশলে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন এ ঘটনার বিচার চেয়ে কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমানকে ঘটনা জানালে তিনি হোটেল কর্মচারি সোহেল ও এএসআই আমিনুল ইসলামকে মূখোমুখি করেন। এসময় অহেতুক হোটেল কর্মচারিকে মারধর ও সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনাটি প্রমানিত হয়। এ ব্যপারে কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সততা স্বীকার বলেন, অহেতুক হোটেল কর্মচারিকে মারধরের বিষয়ে উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষ অবগত করা হয়েছে। এএসআই আমিনুল ইসলামের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ##