বন্দরে আওয়ামী লীগ নেতার ভাইকে গলাকেটে হত্যা ॥ আটক এক

597

নাসির উদ্দিন-বন্দর প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ বন্দরে থানা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের ভাই আলহাজ্ব কুতুব উদ্দিন (৭০)কে এলাপাথারি কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। গত সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টায় সন্ত্রাসীরা বাড়িতে প্রবেশ করে কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় চিৎকার শুনে এলাকাবাসী এসে ছুরিসহ শামীম (২৫) নামে এক খুনীকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। নিহত কুতুব উদ্দিন ৪ সন্ত্রানের জনক। তিনি বাড়ির পাশে মুদি দোকানে ব্যবসা করতেন। রাতেই পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।
নিহতের ভাই বন্দর থানা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবেদ হোসেন বলেন, স্থানীয় পঞ্চায়েতের বিরোধের জেল ধরে জাতীয়পার্টির নেতা আজিজুল হক আজিজ ও রাজা মিয়া ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে তার ভাইকে খুন করিয়েছে। তারা ৯০ সালেও একবার তার ভাইকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছিল। রাতে খুনীরা তাকে মোবাইল ফোনে বলে তার দোকানে তালা দেয়া হয়নি, তালা খোলা রয়েছে। এ কথা শুনে তিনি তার রুম থেকে বেরিয়ে নিচে চলে এলে সন্ত্রাসীরা তাকে এলাপাথারি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় তার চিৎকার শুনে এলাকাবাসী বেরিয়ে এসে সন্ত্রাসী শামীমকে ধরে ফেলে এবং মুর্মূষু অবস্থায় তার ভাইকে হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান। নিহত আলহাজ্ব কুতুব উদ্দিন বন্দরের সোনাকান্দা এলাকার মৃত ইউনুছ আলীর ছেলে।
এ ব্যপারে বন্দর থানার ইনস্পেক্টর (তদন্ত) হারুন অর রশিদ জানান, নৌ-বাহিনী পরিচালিত ডক ইয়ার্ডের গেইটের উল্টো দিকে নিহত কুতুব উদ্দিনের বাড়ি। বাড়ির সামনেই তিনি খুন হন। খুনের কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গ্রেফতারকৃত ভাড়াটিয়া খুনী শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রয়েছে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল। ###