নবজাতক ‘জয়েন্ট টুইন বেবীকে বাঁচানো গেলোনা

929

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় জন্ম নেয়া নবজাতক ‘জয়েন্ট টুইন বেবীকে চেষ্টা করে বাচাতে পারেনি চিকিৎসকরা।
বুধবার দিবাগত রাত দেড়টায় ফতুল্লার রাবেয়া ক্লিনিকে জন্ম নিলেও ভোর ৬টার দিকে মৃত্যু হয় নবজাতকের।
সদর উপজেলার ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ চতলার মাঠ এলাকার আফির হোসেনের স্ত্রী রুনা আক্তারের গর্ভে প্রায় ২৯ সপ্তাহ থাকার পর রাবেয়া ক্লিনিকে নরমাল ডেলিভারীর মাধ্যমে জন্ম হয় ওই শিশুর। রাবেয়া ক্লিনিকের চিকিৎসক রাবেয়া এবং মরজিয়া নরমাল ডেলিভারী করান।
এ ব্যাপারে জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ আশুতোষ দাশ জানান, নবজাতক শিশুকে আমি দেখেছি। জন্ম নেয়া নবজাতকের উপরের অংশে দুইটি শিশু হলেও কোমরের নিচের অংশে ছিলো জোরালাগা। এটা জন্মগত ত্রুটি। প্রতি দুই লাখে একটি এ রকম শিশুর জন্ম হয়। এদেরকে বাঁচানো প্রায় অসম্ভব। ডাক্তাররা অনেক চেষ্টা করেছে। কিন্তু নবজাতকটিকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। #
কের চিকিৎসক রাবেয়া এবং মরজিয়া এই নরমাল ডেলিভারী করান।
এ বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ আশুতোষ দাশ জানিয়েছেন, নবজাতক শিশুকে আমি দেখেছি। জন্ম নেয়া নবজাতকের উপরের অংশে দুইটি শিশু হলেও কোমরের নিচের অংশে ছিলো জোরালাগা। এটা জন্মগত ত্রুটি। প্রতি দুই লাখে একটি এ রকম শিশুর জন্ম হয়। এদেরকে বাঁচানো প্রায় অসম্ভব। ডাক্তাররা অনেক চেষ্টা করেছে। কিন্তু নবজাতকটিকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। ##