দেয়াল চাপায় ৪জন নিহতের ঘটনায় জমির মালিকসহ ৪ জনে বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

41

নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার পাগলা বাজার এলাকায় দেয়াল চাপা পড়ে একই পরিবারের তিন শিশুসহ ৪ জনের মৃত্যুর ঘটনায় জমির মালিক চাঁন মিয়াসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ।
বুধবার সন্ধ্যায় ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) দিদারুল আলম বাদী হয়ে হয়ে থানায় মামলাটি দায়ের করেন।
মামলার আসামীরা হলো- জমির মালিক চাঁন মিয়া, ঠিকাদার ইসমাঈল হোসেন, সার্বিক তত্ত্বাবধায়ক হাজী আব্দুল মালেক ও গুদাম তৈরীকারক রফিকুল ইসলাম।
মামলার বাদী এজাহারে অভিযোগ করেন, সদর উপজেলার ফতুল্লার পাগলার নিউ মডেল শান্তি নিবাস এলাকায় গত সোমবার সকালে অবহেলা জনিত কারণ ওই জমির মালিক চাঁন মিয়াসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীরা দেয়াল ভাঙ্গার সময় যে জন নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নেয়ার দরকার ছিল তা তারা করেনি। তাদের অবহেলাজনিত কারণে তিন শিশুসহ ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আসামীদের বিরুদ্ধে দন্ডবিধি ৩০৪(ক)/৩৩৮/৩৪ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। যদি তারা জননিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতো তাহলে এতো মানুষের প্রাণহানির ঘটনা ঘটতো না।
ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) কামাল উদ্দিন জানান, নিহতের পরিবার লাশ দাফন শেষ করে এখনো বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ফেরেনি। ঘটনার তিন দিন বাহিত হতে চললেও তারা না ফিরে আসায় আইনী বাধ্যবাধকতার কারণএবং নিহতের পরিবারের সাতে আলোচনা করে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
উল্লেখ্য, গত ২৩ অক্টোবর সোমবার সকালে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার পাগলা বাজার এলাকায় নিউ মডেল শান্তি নিবাস এলাকায় জনৈক চাঁন মিয়া গুদামের দেয়াল ভাঙ্গার সময় দেয়াল চাপা পড়ে একই পরিবারের(ট্রাক শ্রমিক সাইফুল ইসলাম ও মাসুমা দম্পত্তির) তিন শিশুসহ ৪ জন নিহত হয়। আহত আরো দুই জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহতেরা হলো-ফতুল্লার পাগলা এলাকার সাইফুল ইসলামের মেয়ে তিন মেয়ে লামিয়া(১২), লাবনী(৮) লিমা(৩) ও ওই এলাকার আলমগীর হোসেন(৩০)। আহত মোস্তফা ও ইউসুফকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত লামিয়া পটুয়াখালী জেলার ছোট আউলিয়া সরকারী বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। এই ঘটনায় নিহতের লাশের ময়না তদন্ত শেষে লাশ গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীতে নিয়ে যায়।#