আড়াইহাজারে সহকর্মীর ছুরিকাঘাতে পাওয়ার টিলার চালক খুন

833

আড়াইহাজার প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় সহকর্মীর ছুরিকাঘাতে পাওয়ার টিলার চালক সাগর(৩৫) নামের এক যুবক খুন হয়েছে। আজ শনিবার সকালে উপজেলার বিশনন্দী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে এলাকাবাসি ঘাতক সুমনকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, আজ শনিবার সকালে উপজেলার বিশনন্দী ইউনিয়নের চলারচর এলাকায় ব্রীজের সামনে বালুর ট্রলি (পাওয়ার টিলার) চালক সাগর (৩৫) ও সুমন মিয়া(২৫) এর মধ্যে বাড়ি যাওয়া নিয়ে তর্কবিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে তাদের দণৎনের মধ্যে হাতাহাতিতে হয়। পরে সুমন মিয়া তার বাড়ি গিয়ে একটি ছোরা নিয়ে এসে সাগরের বুকের বাম পাশে আঘাত করে। এতে সাগর মিয়া মারাত্মক ভাবে আহত হয়ে অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন ও তার সহকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ হাবিব ইসমাইল জানান, সাগরের ফুসফুসে আঘাতের কারনে প্রচন্ড রক্তক্ষরন হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।
ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন ঘাতক সুমন মিয়াকে আটক করে গণপিটুনী দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে।
এ ব্যাপারে গোপালদী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আহসান হাবির জানান, নিহত সাগরের গ্রামের বাড়ি ফেনি সদর থানার ধর্মপুর গ্রামে । হলে তার পিতার নাম জানা যায়নি। ঘাতক সুমন মিয়া নোয়াখালি জেলার কবির হাট থানার সোনাদিয়া এলাকার নুরুল হক মাষ্টারের ছেলে। তারা বিশনন্দী ইউনিয়নের চালারচর গ্রামের আবুল কাশেম এর বাড়িতে ভাড়া থাকত। আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান,এ ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন। ###