আড়াইহাজারে জামাইর হাতে শ্বশুর খুন,জামাই মুছা গ্রেফতার

16

হারাধন চন্দ্র দে-আড়াইহাজার প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে মেয়ের জামাইর পিটুনীতে শ্বশুর জাফর আলী(৫৫) নিহত হয়েছে। স্থানীয় লোকজন জামাই মুছা(৩২)কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, ২১অক্টোবর শনিবার সকাল ৬টার দিকে উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের হাজীরটেক গ্রামে এ হত্যাকান্ডটি ঘটেছে।
ঐ দিন সকালে এ গ্রামের জাফর আলীর বাড়িতে একই এলাকার মোস্তফার ছেলে মেয়ের জামাই মুছা মিয়া তার শ্বশুর বাড়িতে স্ত্রী ও ২সন্তানকে নিয়ে যাওয়ার জন্য আসে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শ্বশুর বাড়ির লোকজনদের সাথে জামাইর তর্কবিতর্ক ও হাতাহাতি হয়। ঐ সময় মেয়ের জামাই মুছা মিয়া শ্শুর জাফর আলীকে লাঠি দিয়ে এলাপাথারী পিটায় ও ইট দিয়ে ঢিল ছুড়লে তা শ্বশুর এর মাথায ও অন্ড কোষে লাগলে সে অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায়। পরে বাড়ির লোকজন আহত শ্বশুরকে উদ্ধার করে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন জামাই মুছা মিয়াকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।
মুছা মিয়ার স্ত্রী খায়রুননেছা জানান,বেশ কিছুদিন ধরে তার স্বামী যৌতুকের জন্য তকে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করার কারনে সে তার সন্তানদের নিয়ে পিতার বাড়িতে চলে আসে। সে তার জামাই মুছা মিয়ার সাথে যেতে না চাওয়ার কারনে মুছা মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে তার পিতাকে হত্যা করে।
আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
তবে স্থানীয় একটি সূত্রে জানাগেছে, হত্যাকারী জামাই মুছা মিয়ার পিতা কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোস্তফা মিয়া রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে পুলিশ ম্যানেজ করে মামলা না নেওয়ার জন্য প্রভাব খাটাচ্ছে। ###